কলেজ ছাত্রের সাথে বিয়ে করা সেই শিক্ষিকার ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

কলেজ ছাত্রের সাথে বিয়ে করা সেই শিক্ষিকার আত্মহত্যা

নাটোরের গুরুদাসপুরে কলেজছাত্র মো. মামুন হোসেনকে (২২) বিয়ে সেই শিক্ষিকার ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

আজ রোববার (১৪ আগস্ট) সকাল ৭টার দিকে শহরের বলারিপাড়া এলাকার একটি ভাড়া বাসা থেকে কলেজশিক্ষক খাইরুন নাহারের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

কলেজ ছাত্রের সাথে বিয়ের ছয় মাসের মাথায় কলেজশিক্ষক খাইরুন নাহারের (৪৫) মারা যাওয়ার ঘটনা ঘটেছে।

নাটোর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাছিম আহম্মেদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, এটি হত্যা না আত্মহত্যা এ ব্যাপারে এখনই বিস্তারিত কিছু বলা যাচ্ছে না। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য মামুনকে হেফাজতে নেওয়া হয়েছে।

এলাকাবাসী মামুনের বরাত দিয়ে জানা গেছে, সকালে ফজরের নামাজ পড়ে মামুন বাড়িতে ঢুকে দরজায় নক করেন। কিন্তু তাতে কোনো সাড়া না পাওয়ায় দরজা ভেঙে ভেতরে এসে দেখেন গলায় ওড়না পেঁচিয়ে সিলিং ফ্যানের সঙ্গে ঝুলে আছেন খাইরুন নাহার।

এর আগে গত বছরের ১২ ডিসেম্বর কাজি অফিসে গিয়ে কলেজশিক্ষক খাইরুন নাহার ও ছাত্র মো. মামুন হোসেন গোপনে বিয়ে করেন। বিয়ের ছয় মাসেরও বেশি সময় পার হওয়ার পর চলতি বছরের জুলাই মাসের শেষ দিকে বিষয়টি এলাকায় জানাজানি হয়। জানাজানি হওয়ায় এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়।

খাইরুন নাহার গুরুদাসপুর খুবজীপুর এম হক ডিগ্রি কলেজের সহকারী অধ্যাপক এবং মামুন নাটোর এন এস সরকারি কলেজের ডিগ্রি দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র।


আরো পড়ুনঃ বিএনপির পেট্টোলবোমা সন্ত্রাসীরা মাঠে নেমেছে, তাদের প্রতিরোধ করতে হবে : তথ্যমন্ত্রী

Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url